ছেলেকে পেটাচ্ছে দুর্বৃত্তরা, ভয়ে দূরে দাঁড়িয়ে দেখছিলেন বাবা-মা

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাড়ির সমনের সড়কে ফেলেই নৃপেন চন্দ্র সূত্রধরকে (২৫) মারধর করছে সন্ত্রাসী। ছেলের চিৎকারে বৃদ্ধ মা ও প্রতিবন্ধী বাবা এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও সন্ত্রাসীদের প্রাণনাশের হুমকিতে তা আর সম্ভব হয়নি।

পরে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে যুবক নৃপেনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। আজ বুধবার সকালে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মমরুজপুর গ্রামে।

আহত নৃপেন চন্দ্র মমরুজপুর গ্রামের জীতেন সূত্রধরের ছেলে। আহতের মা চারু বালা সূত্রধর (৫০) জানান, গ্রামের চার তরুণ সকাল ৯টার দিকে নৃপেনের রাস্তা আটকে মারধর করে রাস্তায় ফেলে রেখে চলে যায়।

সন্ত্রসীদের ভয়ে কেউ ঘটনাস্থলে যেতে সাহস পায়নি। পরে কে বা কারা ৯৯৯-এ ফোন করে বিষয়টি জানালে হলে পুলিশ এসে নৃপন্দ্রকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

চারুবালার অভিযোগ মতে মারধরকারীরা হচ্ছে- একই গ্রামের আবদুল হেকিমের ছেলে মো. বাদল মিয়া, মফিজ উদ্দিনের ছেলে নয়ন মিয়া, আবদুল মজিদের ছেলে শহীদ মিয়াসহ আরো একজন। তবে গ্রামে গিয়ে খোঁজ করে অভিযুক্ত তরুণদের পাওয়া যায়নি। তাঁদের সম্পর্কে কেউ কথা বলতেও রাজি হননি।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল কাদের মিয়া বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা থেকে ফোন পেয়ে আহত অবস্থায় এক তরুণকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তরুণের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ

Leave a Comment